‘বাংলার টাইগ্রেস’ রিতা

বুধবার, ২২ জুলাই, ২০১৫ (১৯:০১)
‘বাংলার-টাইগ্রেস’-রিতা

রিতা

চোখজুড়ানো পারফরমেন্স। শৈল্পিক ভঙ্গিতে রিদমিক জিমন্যাস্টিক্সের অসাধারণ উপস্থাপনা তার। নজরকাড়া নৈপুণ্যে, স্থান করে নিয়েছেন রাশিয়া ও বিশ্ব রিদমিক জিমন্যাস্টিক্সের অসংখ্য ভক্তের হৃদয়ে। বিশ্ব র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষস্থানটি নিয়েছেন নিজ দখলে। তিনি রাশিয়ার বাঙালি বংশোদ্ভূত রিদমিক জিমন্যাস্ট-মারগারিতা মামুন।

বাংলার টাইগার বলতে আমরা আমাদের ক্রিকেট যোদ্ধাদেরই চিনি। কিন্তু দেশের সীমানা ছাপিয়ে ‘বাংলার টাইগ্রেস’ নামে পরিচিতি পেয়েছেন বাঙালি রিতা। রিদমিক জিমন্যাস্টিক্সে বিশ্ব-র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষস্থানটি তার। বাঙালি বাবা আর রুশ মায়ের সন্তান রিতা এখন মার্গারিতা মামুন। রাশিয়াতে রিদমিক জিমন্যাস্টিক্সের রাণী।

বেঙ্গল টাইগ্রেস নামেই পরিচিত মারগারিতা। রাশানরা আদর করে ডাকে বেঙ্গস্কি তিগরিসা। মন্ট্রিল, মস্কো, কিয়েভ, বার্লিন, তাসখন্দ, লিসবন, ভিয়েনা, বার্সেলোনা, টোকিওসহ বিশ্বের বিখ্যাত শহরগুলোতে নিজের মনোমুগ্ধকর পারফরমেন্সে মাতিয়েছেন হাজারো দর্শক। হুপ, ক্লাব, রিবন, গালা সব ধরনের রিদমিক জিমন্যাস্টিক্সের সব ধরনের ইভেন্টেই সাফল্য এসেছে রিতার ঝুলিতে।

মারগারিতার জন্ম মস্কোতে ১৯৯৫ সালের ১ নভেম্বর। বাবা রাজশাহীর ছেলে মেরিন ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল্লাহ আল মামুন। মা রাশিয়ার সাবেক জিমন্যাস্ট আনা। ১৯৮৩ সালে শিক্ষাবৃত্তি নিয়ে রাশিয়ায় যান মামুন। সেখানেই আনার সঙ্গে তার পরিচয়। ঘর বাধা। তাদেরই প্রথম সন্তান মার্গারিতা। মা আনার হাত ধরেই রিতা এসেছেন জিমন্যাস্টিক্স জগতে।

সাত বছর বয়সে জিমন্যাস্টিকে হাতেখড়ি রিতার। ২০০৫ সালে এস্তোনিয়ায় মিস ভ্যালেন্টাইন কাপ দিয়ে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে আবির্ভাব। সেই থেকে জিমন্যাস্টিকের ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপ, ইউরোপিয়ান গেমস, ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ, ওয়ার্ল্ডকাপ ফাইনাল, গ্র্যান্ড প্রিক্স ফাইনালে জিতেছেন একাধিক পদক। রাশিয়ার জাতীয় পর্যায়ে ২০১১ সাল থেকে টানা তিনবার হন অলরাউন্ড চ্যাম্পিয়ন। মাঝে বাংলাদেশের জাতীয় দলেও যোগ দিয়েছিলেন রিতা। কিন্তু প্রশিক্ষণের সুযোগ-সুবিধাসহ সবদিক বিবেচনা করে ফিরে যান রাশিয়ায়।

দুই কোচ সাবেক রিদমিক জিমন্যাস্টিক্সের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন আমিনা জারিপোভা ও ইরিনা ভিনের পরিচর্যা একের পর এক সাফল্য কুড়াচ্ছেন মার্গারিতা মামুন।

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

মোঘল স্থাপত্য শৈলীর অন্যতম নিদর্শন মুন্সিগঞ্জে ইদ্রাকপুর দুর্গ

আরেক ভাষা সংগ্রামী সিরাজুল ইসলাম

ভাষা আন্দোলনের সাহসী নারী লায়লা নূর

সাহসী এক নারী মুক্তিযোদ্ধা কনক মজুমদার

শেরপুরের কাঁটাখালী গণহত্যা দিবস আজ

ঈদ বাজারে জায়গা করে নিচ্ছে ভিনদেশি পোশাক