সদ্য পাওয়া
Desh TV Logo জাতীয়: নাইক্ষ্যংছড়িতে রেড ক্রিসেন্টের ত্রাণবাহী ট্রাক খাদে, কমপক্ষে ৯ জনের মৃত্যু Desh TV Logo জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে নিউইয়র্ক সময় আজ সন্ধ্যায় ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী, রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে বাংলাদেশের প্রস্তাব বিশ্বের কাছে তুলে ধরবেন Desh TV Logo রোহিঙ্গা ইস্যুতে মিয়ানমারের ওপর নিরাপত্তা পরিষদের নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা উচিৎ: জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক প্রধান Desh TV Logo রোহিঙ্গা সংকট নিরসনে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের ‘বলিষ্ঠ ও দ্রুত’ পদক্ষেপ চান মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প, জানালেন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স Desh TV Logo রোহিঙ্গা শরণার্থী সংকট মোকাবেলায় বাংলাদেশের পাশে থাকবে যুক্তরাষ্ট্র: মার্কিন রাষ্ট্রদূত, ২৮ মিলিয়ন ডলার আর্থিক সহায়তা দেওয়ার ঘোষণা Desh TV Logo রোহিঙ্গারা যতদিন বাংলাদেশে থাকবে সব ধরনের সহায়তা দেওয়া হবে, সেইসঙ্গে তাদের ফিরিয়ে নিতে কূটনৈতিক তৎপরতা চলবে: ত্রাণমন্ত্রী Desh TV Logo আন্তর্জাতিক: মেক্সিকোতে শক্তিশালী ভূমিকম্পে ধসে পড়া ভবনগুলোর ধ্বংসস্তূপের ভেতরে আটকেপড়াদের উদ্ধারে অভিযান চলছে, তিনদিনের রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা Desh TV Logo খেলা: ক্রিকেট: দক্ষিণ আফ্রিকা আমন্ত্রিত একাদশের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে দুপুর ২টায় মাঠে নামবে বাংলাদেশ দল Desh TV Logo পাকিস্তানের বিপক্ষে আসন্ন টেস্ট সিরিজের জন্য ১৬ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড Desh TV Logo ফুটবল: অনূর্ধ্ব-১৮ সাফ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপে মালদ্বীপকে ২-০ গোলে হারিয়েছে বাংলাদেশ Desh TV Logo রিয়াল মাদ্রিদকে ১-০ গোলে হারিয়েছে রিয়াল বেটিস Desh TV Logo দেশ টিভির সংবাদ দেখুন সকাল সাড়ে ৭টা, ১০টা, বেলা ১২টা, দুপুর ২টা, বিকাল ৪টা, সন্ধ্যা ৭টা, রাত ৯টা, ১১টায় এবং ১টায়

ঐতিহাসিক ৬ দফা দিবস আজ

রবিবার, ০৭ জুন, ২০১৫ (১১:১৭)
ঐতিহাসিক-৬-দফা-দিবস-আজ

৬ দফা দিবস

ঐতিহাসিক ৬ দফা দিবস আজ। ১৯৬৬ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি লাহোরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙালির মুক্তি আন্দোলনের সনদ ৬ দফা তুলে ধরলে জাতি পায় স্বাধীনতা আদায়ের মূলমন্ত্র। ভোটের অধিকার, আলাদা মুদ্রা ও আঞ্চলিক কর পদ্ধতিসহ এসব দাবি আদায়ে ৭ জুন সোচ্চার হয়ে ওঠে এ বাংলার স্বাধীনচেতা জনতা। দাবি আদায়ে জোরদার হয় বাঙালির আন্দোলন-সংগ্রাম।

ঐতিহাসিক ৬ দফা ছিল বাঙ্গালি জাতির মুক্তির সনদ। ৬ দফার মধ্যে নিহিত ছিল বাঙালির স্বাধীনতার বীজ। নির্যাতিত নিপীড়িত, শোষিত এবং ন্যায্য অধিকার বঞ্চিত বাঙালি জাতিকে পশ্চিম পাকিস্তানি শাসক গোষ্ঠীর নাগপাশ থেকে মুক্ত করার জন্য বাঙালিদের প্রাণের দাবি ছিল ছয় দফা দাবি।

১৯৬৬ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এই ঐতিহাসিক ৬ দফা পেশ করেন। বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক জীবনের অন্যতম গৌরবময় অধ্যায় ৬ দফায় মূল বক্তব্য ছিল, প্রতিরক্ষা এবং পররাষ্ট্রনীতি ছাড়া সব ক্ষমতা প্রাদেশিক সরকারের হাতে থাকবে। পূর্ব বাংলা ও পশ্চিম পাকিস্তানে দুটি পৃথক ও সহজ বিনিময়যোগ্য মুদ্রা থাকবে। সরকারের কর, শুল্ক ধার্য ও আদায় করার দায়িত্ব প্রাদেশিক সরকারের হাতে থাকাসহ দুই অঞ্চলের অর্জিত বৈদেশিক মুদ্রার আলাদা হিসাব থাকবে এবং পুর্ববাংলার প্রতিরক্ষা ঝুঁকি কমানোর জন্য এখানে আধাসামরিক বাহিনী গঠন ও নৌবাহিনীর সদর দপ্তর স্থাপন।

তবুও দাবি আদায়ের লক্ষ্যে বঙ্গবন্ধু পুনরায় জনসংযোগ চালাতে থাকলে ৯ মে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। তিন মাস তাকে আটকাদেশ দেয়া হলে বাঙালি যুব, ছাত্র জনতা এক দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলে। সেই অবস্থায় আওয়ামী লীগের নেতারা ৭ জুন দেশব্যাপী হরতাল পালনের সিদ্ধান্ত নেয়। দেশের সর্বত্র হরতাল চলাকালে রাজধানীর তেজগাঁওয়ে শ্রমিকরা মিছিল বের করলে পুলিশ নির্বিচারে গুলি চালায়। এতে মনু মিয়াসহ ১১ জনের মৃত্যু হয়। আহত ও গ্রেপ্তার হন অনেকেই। হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে ফেটে পড়ে গোটা দেশ।

এই আন্দোলন গণঅভ্যুত্থানে পরিণত হলে তৎকালীন পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট সামরিক জান্তা আইয়ুব খান বাধ্য হয়ে পাকিস্তানের শাসনভার তৎকালীন সেনাপ্রধান জেনারেল ইয়াহিয়ার হাতে দিয়ে পদত্যাগ করেন।

৬ দফা আন্দোলনের পথ ধরে সূচিত হয় ৬৯ এর গণঅভ্যুত্থান। যা পরিণত হয় ৭১ এর মুক্তির আন্দোলনে।

১৯৬৬ সালের ছয় দফা আন্দোলনের এক অনন্য মহিমায় সিক্ত রক্তঝরা দিবস হিসেবে ৭ জুন চিরকালই স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

পুরনো সংবাদ

শুক্র
শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
০১
০২
০৩
০৪
০৫
০৬
০৭
০৮
০৯
১০
১১
১২
১৩
১৪
১৫
১৬
১৭
১৮
১৯
২০
২১
২২
২৩
২৪
২৫
২৬
২৭
২৮
২৯
৩০