অপরাধ

মঙ্গলবার, ২৬ জুন, ২০১৮ (১৮:৫৩)

কুষ্টিয়া-যশোরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৩ জন নিহত

কুষ্টিয়া-যশোরে ‘বন্দুকযুদ্ধে'

কুষ্টিয়ায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ অপহরণ ও হত্যা মামলার দুই আসামি এবং যশোরে দু’দল সন্ত্রাসীর মধ্যে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ অজ্ঞাতপরিচয় এক যুবক নিহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার ভোরে এসব ঘটনা ঘটে।

কুষ্টিয়া:

কুষ্টিয়ার মিরপুরে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ অপহরণ ও হত্যা মামলার দুই আসামি নিহত হয়েছেন।

তার নাম নাঈম ইসলাম (২৭) ও জোয়ার আলী (২৮)। মঙ্গলবার ভোর ৪টায় উপজেলার চিথলিয়া ইউনিয়নের পাহাড়পুর গ্রামে এ ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, নিহতরা মিরপুরের আলোচিত স্কুলছাত্র দেব দত্ত অপহরণ ও হত্যা মামলার আসামি। আসামিদের স্বীকারোক্তিনুযায়ী সোমবার দুপুরে নাঈমের বাড়ির শৌচাগারের পাশে গর্ত খুড়ে দেব দত্তের হাত-পা বাঁধা বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

পুলিশের দাবি, বন্দুকযুদ্ধে ৪ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র, গুলি ও রামদা উদ্ধার করেছে।

মিরপুর থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জানান, স্কুলছাত্র দেব দত্ত অপহরণ ও হত্যা মামলার আসামি নাঈম ও জোয়ার আলীক সঙ্গে নিয়ে অন্য আসামিদের ধরতে চিথলিয়া ইউনিয়নের পাহাড়পুর গ্রামে অভিযান চালানো হয়। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে একদল সন্ত্রাসী পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। জবাবে পুলিশও পাল্টা গুলি চালালে জোয়ার ও নাঈম গুলিবিদ্ধ হয়। পরে তাদের মিরপুর হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় পুলিশের ৪ সদস্য আহত হয়েছেন। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে দুইটি দেশীয় তৈরি বন্দুক, ৭ রাউন্ড গুলি ও ৪টি রামদা উদ্ধার করেছে। নিহত নাঈম ইসলাম মিরপুর উপজেলার চিথলিয়া ইউনিয়নের মালিথা পাড়ার জহুরুল ইসলামের ছেলে ও জোয়ার আলী একই গ্রামের আক্কাস আলীর ছেলে। পুলিশ নিহতদের লাশ উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

গত ৯ জুন মিরপুর উপজেলার চিথলিয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র দেব দত্ত (৯) প্রাইভেট পড়ার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হওয়ার পর অপহরণ হয়। ওইদিন বিকেলে তার বাবা স্কুল শিক্ষক পবিত্র দত্তের মুঠোফোনে ফোন করে ৫০ লাখ টাকা মুক্তপণ দাবি করে অপহরণকারীরা। এ ঘটনায় পুলিশ নাঈম ও জোয়ারকে আটক করে। তাদের স্বীকারোক্তিনুযায়ী সোমবার দুপুরে পুলিশ নাঈমের বাড়ির শৌচাগোরের পাশে গর্ত খুড়ে দেব দত্তের হাত-পা বাঁধা বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করে।

যশোর:

যশোরে দু’দল সন্ত্রাসীর মধ্যে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ অজ্ঞাতপরিচয় এক যুবক নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার ভোরে যশোরের চৌগাছা উপজেলার ফুলসারা ইউনিয়নের নিমতলা নামক স্থানে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করেছেন। তবে তার নাম-পরিচয় এখনও জানা যায়নি।

যশোরের চৌগাছা থানার ওসি খন্দকার শামীম উদ্দিন জানান, মঙ্গলবার ভোরে তারা খবর পান ফুলসারা ইউনিয়নের নিমতলা এলাকায় দু’দল সন্ত্রাসী গোলাগুলি করছে। এ খবরের ভিত্তিতে তারা ওই এলাকায় অভিযান চালান। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল থেকে অজ্ঞাতপরিচয় এক যুবককে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। তাকে যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি ওয়ানশুটারগান ও এক রাউন্ড গুলি উদ্ধার করেছে। নিহতের লাশ হাতপাতালের মর্গে রয়েছে।

 

ইউটিউবে দেশ টেলিভিশনের জনপ্রিয় সব নাটক ও অনুষ্ঠান দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Desh TV YouTube Channel

এছাড়াও রয়েছে

বুলবুলের পথসভায় বিস্ফোরণ, বিএনপি নেতা আটক

চলমান ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৪ জন নিহত

নাটোরে তিন জেএমবি সদস্য গ্রেপ্তার

ঝিনাইদহে র‌্যাবের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধ’ নিহত ১

ময়মনসিংহ-কুষ্টিয়ায় ‘বন্দুকযুদ্ধ’ নিহত ২

পানামা পেপার্স: ইউনাইটেড গ্রুপের চেয়ারম্যানকে দুদকে জিজ্ঞাসাবাদ

ধর্ষণের অভিযোগ ওসমানী মেডিকেলে ইন্টার্ন চিকিৎসক আটক

মহেশপুরে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাত নিহত

বিএনপির শর্ত পূরণ আদৌ সম্ভব কিনা— সংশয়ে রাজনৈতিক বিশ্লেষকেরা

সড়ক-মহাসড়ক-রেল লাইন-আবাসিক এলাকায় পশুর হাট বসবে না

দেশপ্রেমিক নেতৃত্বের ওপর আস্থাশীল হওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

বিএনপির বক্তব্যে সহিংসতার আভাস: কাদের