সদ্য পাওয়া
Desh TV Logo জাতীয়: বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে হবে মিয়ানমারকে, নিউইয়র্কে গণসংবর্ধনায় বললেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, রাখাইনে সামরিক বাহিনীর দমন-নির্যাতন বন্ধের দাবি Desh TV Logo রোহিঙ্গা ইস্যুতে মিয়ানমার সরকারের উপর আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের চাপ ক্রমেই বাড়ছে: জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে বিশ্ব নেতাদের উদ্বেগ প্রকাশ Desh TV Logo রোহিঙ্গাদের ত্রাণ-পুনর্বাসন কার্যক্রমে অংশ নিয়েছে সেনাবাহিনী: কক্সবাজারে ওবায়দুল কাদের Desh TV Logo মুন্সীগঞ্জের চরমুক্তারপুরের আইডিয়াল টেক্সটাইল মিলের আগুন নিয়ন্ত্রণে, ৬ জনের মৃতদেহ উদ্ধার Desh TV Logo আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে দেশে ফোর-জি নেটওয়ার্ক চালু হচ্ছে: টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী Desh TV Logo স্বার্থ হাসিলের উদ্দেশ্যে সরকারকে ভুল তথ্য দিয়ে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছেন চালকল মালিকরা, পাটের বস্তার কারণে চালের দাম বেড়েছে এটা ডাহা মিথ্যা কথা: পাট ও বস্ত্র প্রতিমন্ত্রী Desh TV Logo উপজেলা পর্যায়ে ওএমএস কার্যক্রম শুরু Desh TV Logo আন্তর্জাতিক: মেক্সিকোতে ৭ দশমিক ১ মাত্রার ভূমিকম্পে এ পর্যন্ত ২৫০ জনের প্রাণহানি, মেক্সিকো সিটিতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি, আরো প্রাণহানির আশঙ্কা Desh TV Logo যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্রদের রক্ষার জন্য প্রয়োজনে উত্তর কোরিয়াকে সমূলে ধ্বংস করে দেয়ার হুমকি দিয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প Desh TV Logo এবার ভার্জিন আইল্যান্ডস ও পুয়ের্টো রিকোতে হারিকেন মারিয়ার তাণ্ডব Desh TV Logo খেলা: দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে ইমিগ্রেশন ক্লিয়ারেন্স না পাওয়ায় যেতে পারেননি বাংলাদেশ পেসার রুবেল হোসেন Desh TV Logo ইনজুরি থেকে পুরোপুরি সেরে না ওঠায় বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে খেলতে পারবেন না দক্ষিণ আফ্রিকার পেসার ভারনন ফিল্যান্ডার, পুরো টেস্ট সিরিজ মিস করবেন ক্রিস মরিস Desh TV Logo ফুটবল: অনূর্ধ্ব-১৮ সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে সন্ধ্যা ৭টায় মালদ্বীপের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ Desh TV Logo লা লিগায় মেসির ৪ গোলে এইবারকে ৬-১ ব্যবধানে হারালো বার্সেলোনা Desh TV Logo দেশ টিভির সংবাদ দেখুন সকাল সাড়ে ৭টা, ১০টা, বেলা ১২টা, দুপুর ২টা, বিকাল ৪টা, সন্ধ্যা ৭টা, রাত ৯টা, ১১টা এবং ১টায়

ভয়াল একুশে আগস্ট আজ, আজও শেষ হয়নি বিচারকাজ

সোমবার, ২১ আগস্ট, ২০১৭ (১৯:০৭)
ভয়াল-একুশে-আগস্ট-আজ,-আজও-শেষ-হয়নি-বিচারকাজ

ভয়াল একুশে আগস্ট আজ, আজও শেষ হয়নি বিচারকাজ

ভয়াল একুশে আগস্ট আজ। ২০০৪ সালের এ দিনে রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় আওয়ামী লীগ সভানেত্রী, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যা করে মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্বদানকারী রাজনৈতিক দলটিকে নেতৃত্বশূন্য করতে ভয়াবহ গ্রেনেড হামলা চালিয়েছিল জঙ্গি-সন্ত্রাসীরা।

বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসবিরোধী সমাবেশে ওই হামলায় শেখ হাসিনা অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা পেলেও প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের স্ত্রী আইভি রহমানসহ নিহত হন ২৪ জন নেতাকর্মী। আহত হয়েছিলেন তিন শতাধিক মানুষ। একযুগ পার হলেও ওই বর্বরতার বিচার আজও শেষ করা যায়নি।

২০০৪ সালে তখন ক্ষমতায় বিএনপি-জামাত জোট। দুই যুদ্ধাপরাধী জামাত নেতা নিজামী-মুজাহিদকে মন্ত্রী বানিয়ে চলছিল সরকার। তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার পুত্র তারেক রহমান তখন দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান— চালান হাওয়া ভবন যা পরিচিতি পায় রাষ্ট্রীয় ক্ষমতার বিকল্প-কেন্দ্র হিসেবে।

আজ থেকে একযুগ আগে ২১ আগস্টে ক্ষমতার বাইরে থাকা আওয়ামী লীগ বিএনপি-জামাত জোটের অব্যাহত সন্ত্রাস-নাশকতার প্রতিবাদে বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে নিজেদের দলীয় কার্যালয়ের সামনের রাস্তায় আয়োজন করে সন্ত্রাস বিরোধী সমাবেশের। যোগ দেয় দলের হাজার হাজার নেতাকর্মী ও সমর্থক। যদিও পূর্বনির্ধারিত সমাবেশটি হওয়ার কথা ছিল তোপখানা-পল্টন মোড়ে মুক্তাঙ্গনের সামনে কিন্তু পুলিশের কারণে সমাবেশ চলে যায় বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে।

সেখানে ট্রাকের ওপরে স্থাপিত অস্থায়ী মঞ্চে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ওইসময় সংসদের বিরোধীদলীয় নেত্রী শেখ হাসিনা যখন বক্তৃতা করছিলেন, বক্তব্য শেষ হওয়ার ঠিক আগ মুহূর্তে ঘটে গ্রেনেড হামলা। তাকে লক্ষ্য করে একের পর এক ছোড়া হতে থাকে গ্রেনেড।

শেখ হাসিনা বলেন, ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার চক্রান্ত উদ্দেশ্য ও তার টার্গেট হওয়ার কথা।

মঞ্চের সামনে-পেছনে-পাশে বিকট শব্দে বিস্ফোরিত হয় গ্রেনেডগুলো। মুহূর্তেই দলের নেতাকর্মীরা মানবঢাল তৈরি করে শেখ হাসিনাকে রক্ষা করেন। ততক্ষণে মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয় পুরো সমাবেশস্থল। মারা যান ২৪ জন নেতাকর্মী, আহত হন তিন শতাধিক।

নেতাকর্মীরা শেখ হাসিনাকে দ্রুত তাঁর গাড়িতে তুলে দিতে যান তখন গাড়ি লক্ষ্য করেও গুলি চালায় হামলাকারীরা। ব্যক্তিগত নিরাপত্তারক্ষীদের তৎপরতায় প্রাণে রক্ষা পান শেখ হাসিনা। গাড়ি তাকে নিয়ে রওনা দেয় ধানমণ্ডির সুধাসদনের পথে।

আর সেদিনের পুলিশ আহতদের উদ্ধার এবং হামলাকারীদের আটকের চেষ্টা না করে উল্টো টিয়ারগ্যাস আর গুলি ছুঁড়ে ভীতিকর পরিস্থিতি তৈরি করে।

এরপরই তিন দফা তদন্তে উদঘাটিত হয় গ্রেনেড হামলার পূর্বাপর। হামলাকারীরা ছিল নিষিদ্ধ হরকাতুল জিহাদ-হুজির জঙ্গি-সন্ত্রাসী। পেয়েছিল সরকারি রাজনৈতিক আনুকূল্য। ছিল রাষ্ট্রীয় পুষ্ঠপোষকতা। আন্তর্জাতিক যোগসাজশে রাষ্ট্র-প্রশাসনের স্তর গলিয়েই গ্রেনেড পৌঁছে সন্ত্রাসীদের হাতে। যুক্ত হন তৎকালীন মন্ত্রী মুজাহিদ, স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বাবর ও উপমন্ত্রী পিন্টু। একই যোগসূত্রে উপমন্ত্রীর ভাই জঙ্গি মাওলানা তাজউদ্দিন। বেরিয়ে আসে হাওয়া ভবন ও তারেক রহমানের সংশ্লিষ্টতা।

এ ভয়াবহ গ্রেনেড হামলায় হত্যাযজ্ঞের বিচারকাজ এখনো শেষ হয়নি। সাক্ষ্যগ্রহণের দীর্ঘসূত্রতায় পড়েছে মামলাটি। দেশের প্রধানতম সবচেয়ে প্রাচীন রাজনৈতিক দলের শীর্ষনেতা ও শীর্ষনেতৃত্বকে হত্যা করার এমন প্রাণঘাতী হামলারাও বিচার একযুগ পেড়িয়ে গেল।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় মোট ৪৯১ সাক্ষীর মধ্যে ২২৫ জনের সাক্ষ্য-জেরা শেষ হয়েছে। বাকি সাক্ষী কাটছাঁট করা হয়েছে। সরকারি কৌঁসুলিরা মনে করেন, যাদের সাক্ষ্য নেয়া হয়েছে, তার মধ্য দিয়ে অপরাধের সব তথ্য উঠে এসেছে। তাই আর সাক্ষ্য নেয়ার প্রয়োজন নেই। সর্বশেষ এ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডির অতিরিক্ত ডিআইজি আবদুল কাহার আকন্দের সাক্ষ্য নেয়া হয়। এখন চলছে আসামিপক্ষের সাফাই সাক্ষী। এরপর উভয় পক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে রায়ের তারিখ ধার্য হবে।

সম্পূরক চার্জশিট: ২০১১ সালের ৩ জুলাই সিআইডি ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে হত্যা ও বিস্ফোরক দ্রব্য আইনের দুটি মামলায় অধিকতর তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করে। উভয় মামলায় বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান, লুৎফুজ্জামান বাবর, হারিছ চৌধুরী, কাজী শাহ মোফাজ্জল হোসেন কায়কোবাদ, জামায়াতের সেক্রেটারি জেনারেল ও জোট সরকারের মন্ত্রী আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদসহ ৩০ জনকে নতুন আসামি করা হয়েছে। সম্পূরক চার্জশিটে অন্য যাদের অভিযুক্ত করা হয়েছে তারা হলেন- ডিজিএফআইর সাবেক মহাপরিচালক মেজর জেনারেল (অব.) রেজ্জাকুল হায়দার চৌধুরী, এনএসআইর সাবেক মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) আবদুর রহিম, পুলিশের সাবেক আইজি আশরাফুল হুদা, শহুদুল হক, অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক খোদা বকস, ডিএমপির তৎকালীন উপকমিশনার (পূর্ব) ওবায়দুর রহমান, সাবেক উপকমিশনার (দক্ষিণ) খান সাঈদ হাসান, হুজির আমির মাওলানা শেখ ফরিদ, নায়েবে আমির মাওলানা আবদুল হান্নান ওরফে সাবি্বর, মাওলানা আবদুর রউফ, খালেদা জিয়ার ভাগ্নে লে. কমান্ডার (অব.) সাইফুল ইসলাম ডিউক, ডিজিএফআইর সাবেক কর্মকর্তা লে. কর্নেল সাইফুল ইসলাম জোয়ার্দার (বরখাস্ত), বিএনপির ঢাকা মহানগর নেতা আরিফুর রহমান, হুজিবির সাবেক আমির ও ইসলামিক ডেমোক্রেটিক পার্টির আহ্বায়ক মাওলানা আবদুস সালাম, কাশ্মীরি জঙ্গি আবদুল মাজেদ ভাট ওরফে ইউসুফ ভাট, আবদুল মালেক ওরফে গোলাম মোস্তফা, সিআইডির বিশেষ সুপার রুহুল আমিন, সাবেক এএসপি মুন্সী আতিকুর রহমান, সাবেক এএসপি আবদুর রশিদ, হানিফ পরিবহনের মালিক বিএনপি নেতা মোহাম্মদ হানিফ, হুজি সদস্য হাফেজ মাওলানা ইয়াহিয়া, মুফতি শফিকুর রহমান, মুফতি আবদুল হাই, বাবু ওরফে রাতুল বাবু, মেজর জেনারেল (অব.) এ টি এম আমিন প্রমুখ।

পুলিশের সাবেক তিন মহাপরিদর্শকসহ আটজন জামিনে আছেন। আসামিদের মধ্যে লুৎফুজ্জামান বাবরসহ ২৩ জন কারাগারে। তারেক রহমান, হারিছ চৌধুরী, মাওলানা তাজউদ্দিন, ইকবাল, মাওলানা আবু বকর, খলিলুর রহমান, রাতুল বাবু, জাহাঙ্গীর আলম ওরফে বদর, মাওলানা লিটন ওরফে জোবায়ের ওরফে দেলোয়ারসহ ১৮ জন পলাতক। পলাতকদের মধ্যে শাহ মোফাজ্জল হোসেন কায়কোবাদ মধ্যপ্রাচ্যে, হানিফ এন্টারপ্রাইজের মালিক মোহাম্মদ হানিফ কলকাতায়, লে. কর্নেল (বরখাস্ত) সাইফুল ইসলাম জোয়ার্দার কানাডায়, রাতুল বাবু ভারতে, মাওলানা তাজুল ইসলাম দক্ষিণ আফ্রিকায়, মেজর জেনারেল (অব.) এ টি এম আমিন যুক্তরাষ্ট্রে রয়েছেন বলে জানা যায়। ডিএমপির তৎকালীন উপকমিশনার (পূর্ব) ওবায়দুর রহমান, সাবেক উপকমিশনার (দক্ষিণ) খান সাঈদ হাসানও বিদেশে অবস্থান করছেন। আসামিদের মধ্যে মাওলানা তাজউদ্দিন, রাতুল বাবু, হারিছ চৌধুরী ও শাহ মোফাজ্জল হোসেন কায়কোবাদের বিরুদ্ধে ইন্টারপোলের রেড নোটিশ রয়েছে। তারেক রহমানের বিরুদ্ধে রেড নোটিশ থাকলেও গত বছরের মার্চে তা প্রত্যাহার করে ইন্টারপোল।

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

Desh Television দেশটিভিতে আজকের অনুষ্ঠান
  • সোজা কথা

    সোজা কথা

    সরাসরি সম্প্রচার

    রবি থেকে বৃহস্পতিবার রাত ১১.৪৫

  • দূরপাঠ

    দূরপাঠ

    সরাসরি সম্প্রচার

    রবিবার থেকে বৃহস্পতি বিকেল ৫টায়

  • টোটাল স্পোর্টস

    টোটাল স্পোর্টস

    অনুষ্ঠান

    প্রতিদিন রাত ১২.৩০

পুরনো সংবাদ

শুক্র
শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
০১
০২
০৩
০৪
০৫
০৬
০৭
০৮
০৯
১০
১১
১২
১৩
১৪
১৫
১৬
১৭
১৮
১৯
২০
২১
২২
২৩
২৪
২৫
২৬
২৭
২৮
২৯
৩০