রবিবার, ০৬ আগস্ট, ২০১৭ (১৩:৪৭)

দিনমজুর নির্মলের আবারো ময়নাতদন্ত, দোষীরা ধরাছোয়ার বাইরে

দিনমজুর-নির্মলের-আবারো-ময়নাতদন্ত,-দোষীরা-ধরাছোয়ার-বাইরে

নড়াইল

আদালতের নির্দেশে নড়াইলে নিহত দিনমজুর নির্মল রায়ের আবারো ময়নাতদন্ত করার জন্য তার মরদেহ উত্তোলন করা হয়েছে।

গত ৪ আগস্ট একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, সদর থানার ওসি, ওসি তদন্ত ও মামলার তদন্তকর্মকর্তাসহ সিঙ্গাশোলপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের উপস্থিতিতে সমাধি থেকে নির্মলের মরদেহ উত্তোলন করা হয়।

এদিকে, নির্মল হত্যা মামলায় এখনো প্রধান আসামিসহ পাঁচ আসামি গ্রেপ্তার না হওয়ায় মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছেন এলাকাবাসী।

মামলার অভিযোগে বলা হয়েছে, নড়াইল সদর উপজেলার সিঙ্গাশোলপুর গ্রামের দিনমজুর নির্মল রায়। নির্মল রায়ের সঙ্গে জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল সিঙ্গাশোলপুর গ্রামের প্রভাবশালী মিল্টন কাজীর। প্রভাবশালী মিল্টন নির্মলকে দেশছাড়া করতে নানা ষড়যন্ত্র করে আসছিল।

এরজেরে গত ২৯ জুলাই রাত সাড়ে ১০টার দিকে মিল্টন ও তার লোকজন নির্মলকে বাড়ি থেকে ডেকে পাশের সিঙ্গাশোলপুর হাই স্কুল মাঠের নিয়ে বেধড়ক মারধর করে। তারা তাকে চিকিৎসা নিতেও বাধা দেয়। এমনকি এ ঘটনা যেন কেউ জানাতে না পারে, সে জন্য তারা নির্মলের বাড়ির সামনে পাহাড়া বসায়।

এ অবস্থায় বিনা চিকিৎসায় গুরুতর আহত নির্মল গত ৩০ জুলাই রাতে মারা যান। পরদিন ৩১ জুলাই সদর হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে মরদেহ দাহ না করে সমাধীস্থ করা হয়। পরে নিহতের ভাইয়ের ছেলে গনেশ বিশ্বাস বাদি হয়ে সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। নির্মল রায়ের মরদেহ পুনরায় উত্তোলন করে ময়নাতদন্ত করতে আদালতে আবেদন করা হয়।

আদালতের নির্দেশের ৪ আগস্ট একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, সদর থানার ওসি, ওসি তদন্ত ও মামলার তদন্তকর্মকর্তাসহ সিঙ্গাশোলপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের উপস্থিতিতে সমাধি থেকে নির্মলের মরদেহ উত্তোলন করা হয়।

এ হত্যা মামলায় পুলিশ দুই আসামিকে ধরলেও প্রধান আসামি মিল্টন কাজীসহ আরো পাঁচ জন এখনো রয়েছেন ধরাছোয়ার বাইরে রয়েছে।

নড়াইল সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন খান বলেন, এ হত্যা মামলায় পুলিশ দুই আসামি ধরা হয়েছে বাকিদের চেষ্টা চলছে।

এদিকে, নির্মলকে হত্যার অভিযোগ এনে দোষীদের বিচারের দাবিতে বৃহস্পতিবার নড়াইল-সিঙ্গাশোলপুর সড়কে সিঙ্গাশোলপুর হাই স্কুলের সামনে মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছেন এলাকাবাসী।

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

নব্য জেএমবির প্রতিষ্ঠাতা সদস্যসহ গ্রেপ্তার ৪

সারাজীবন আকায়েদকে কারাগারেই কাটাতে হবে

ইউপিডিএফের ছয় কর্মী আটক

তেজগাঁওয়ে পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত ১

আরও খবর

শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস: শতাব্দীর বর্বরতম নিধনযজ্ঞ দিন

দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

এসপি হলেন ৯৬ কর্মকর্তা

টেলিভিশন- বেতার মুক্ত হয় ১৭ ডিসেম্বর

জলবায়ুর ক্ষতি মোকাবেলায় আর্থিক সহায়তা পাওয়ার সম্ভাবনা ক্ষীণ

গাজীপুরে নিরাপত্তা প্রহরীকে জবাই করে হত্যা

এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী আর নেই

দুবাইয়ে জয় দিয়ে টি-টেন লিগ শুরু তামিম-সাকিবের

রংপুরের নির্বাচন থেকে বিএনপি প্রার্থিকে সরানো চেষ্টা চলছে: রিজভী

উত্তর কোরিয়া পরিস্থিতি নিয়ে পুতিন-ট্রাম্পের ফোনালাপ