আদালত

বৃহস্পতিবার, ০৯ আগস্ট, ২০১৮ (১৮:৫২)

সিলেটে রাগীব আলী-তার ছেলের ১৪ বছরের সাজা বহাল

সিলেটে রাগীব আলী-তার ছেলের ১৪ বছরের সাজা বহাল

ভূমি মন্ত্রণালয়ের স্মারক জালিয়াতির মামলায় সিলেটের ব্যবসায়ী রাগীব আলী ও তার ছেলে আব্দুল হাইয়ের ১৪ বছরের কারাদণ্ড বহাল রেখেছে আপিল আদালত।

বৃহস্পতিবার সকালে সিলেটের বিশেষ দায়রা জজ আদালতের বিচারক দিলীপ কুমার ভৌমিক এ রায় ঘোষণা করেন।

আদালতের পিপি অ্যাডভোকেট নওসাদ আমদ চৌধুরী বলেন, আপিল নিষ্পত্তির জন্য সিলেটের বিশেষ দায়রা জজ আদালতে স্থানান্তর করা হয়েছে। শুনানি শেষে আদালত আগের রায় বহাল রেখে আদেশ দিয়েছে।

গত বছর ২ ফেব্রুয়ারি রাগীব আলী ও তার ছেলেকে ১৪ বছরের সাজা দেন সিলেটের মুখ্য মহানগর হাকিম সাইফুজ্জামান হিরো। এ রায়ের বিরুদ্ধে সিলেট মহানগর দায়রা জজ আদালতে আপিল করেন রাগীব আলী ও তার ছেলে।

উল্লেখ্য, ১৯৯০ সালে ভূমি মন্ত্রণালয়ের স্মারক (চিঠি) জালিয়াতি করে ভুয়া সেবায়েত সাজিয়ে তারাপুর চা-বাগানের ৪২২ দশমিক ৯৬ একর দেবোত্তর সম্পত্তি রাগীব আলী দখল করেন বলে অভিযোগ ওঠে। পরে ২০০৫ সালে জালিয়াতি ও সরকারের এক হাজার কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে কোতোয়ালি থানায় দুটি মামলা করেন সিলেট সদরের তৎকালীন কমিশনার (ভূমি) এসএম আব্দুল কাদের।

মামলা হওয়ার ১১ বছর পর সিলেটের পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের অতিরিক্ত সুপার সারোয়ার জাহান ২০১৬ সালের ১০ জুলাই দুই মামলায় আদালতে অভিযোগপত্র দেন।

স্মারক জালিয়াতি ছাড়াও প্রতারণার মাধ্যমে ভূমি আত্মসাতের অপর মামলায় গত বছর ৬ এপ্রিল রাগীব আলীকে ১৪ বছর আর তার ছেলে আব্দুল হাইকে ১৬ বছরের সাজা দেয় আদালত।

 

ইউটিউবে দেশ টেলিভিশনের জনপ্রিয় সব নাটক ও অনুষ্ঠান দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Desh TV YouTube Channel

এছাড়াও রয়েছে

জামিনে মুক্ত হলেন আমীর খসরু

মির্জা আব্বাসের মামলা চলতে বাধা নেই

হাসপাতাল থেকে কারাগারে খালেদা জিয়া

নাইকো দুর্নীতি: অভিযোগ গঠনের শুনানি বুধবার পর্যন্ত মুলতবি

আকায়েদ সন্ত্রাসবাদে দোষী সাব্যস্ত: যুক্তরাষ্ট্র আদালত

হবিগঞ্জের লিয়াকত-কিশোরগঞ্জের আমিনুলের মৃত্যুদণ্ড

মানহানির মামলায় ব্যারিস্টার মইনুলের জামিন আবেদন নামঞ্জুর

যুক্তরাজ্যের আদালতে শাস্তি পেল স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি

আমি একজন ডামি ক্যানডিডেট: অর্থমন্ত্রী

আসন নিয়ে কথা চলছে ১৪ দলের সঙ্গে: মাহী

উৎসব মুখর পরিবেশে চলছে বিএনপির মনোনয়ন ফরম বিক্রি

বিদেশি পর্যবেক্ষকদের জন্য নির্বাচন পেছানোর দাবি অযৌক্তিক