আদালত

ksrm

মঙ্গলবার, ০২ জানুয়ারী, ২০১৮ (১৮:৩১)

আপন জুয়েলার্সের তিন মালিকের জামিন স্থগিতাদেশের মেয়াদ বাড়ল

আপন জুয়েলার্সের তিন মালিকের জামিন স্থগিতাদেশের মেয়াদ বাড়ল

আপন জুয়েলার্সের তিন মালিকের জামিনের ওপর স্থগিতাদেশের মেয়াদ আরও ছয় দিন বাড়িয়েছে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

হাইকোর্টের দেয়া জামিন আদেশের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষ যে আবেদন করেছে, আপিল বিভাগে তার শুনানি হবে ৮ জানুয়ারি তার আগ পর্যন্ত তিন ভাইয়ের জামিন স্থগিতই থাকবে।

মঙ্গলবার দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি আবদুল ওয়াহহাব মিঞার নেতৃত্বাধীন পাঁচ বিচারকের বেঞ্চ এ আদেশ দিয়েছে।

সুপ্রিম কোর্টের অবকাশ শেষে রাষ্ট্রপক্ষের আবেদন আপিল বিভাগে তোলা হয়।

আপন জুয়েলার্সের মালিকদের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপস। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মোতাহার হোসেন সাজু।

গত ১৪ ডিসেম্বর আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদ সেলিম এবং তার দুই ভাই গুলজার আহমেদ ও আজাদ আহমেদকে একটি করে মামলায় জামিন দেয় হাইকোর্ট। আর দিলদার আহমেদের বিরুদ্ধে উত্তরা ও ধানমণ্ডি থানার আরও দুটি মামলায় জামিনের বিষয়ে আদেশ ১ মাসের জন্য মুলতবি রাখা হয়।

পরে রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনে অবকাশকালীন চেম্বার আদালত হাইকোর্টের জামিন আদেশের কার্যকারিতা ২ জানুয়ারি পর্যন্ত স্থগিত করে বিষয়টি শুনানির জন্য আপিলের নিয়মিত বেঞ্চে পাঠিয়ে দেয়। এর ধারাবাহিকতায় বিষয়টি মঙ্গলবার আপিল বিভাগ আসে।

দুই মামলায় গত ২২ আগস্ট তিন ভাই হাইকোর্ট থেকে চার সপ্তাহের আগাম জামিন নেন। এরপর বিচারিক আদালতে হাজিরা না দেয়ায় গত ২৩ অক্টোবর তাদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করে আদালত।

পরদিন আত্মসমর্পণ করলে তাদের কারাগারে পাঠায় আদালত— এর বিরুদ্ধে হাইকোর্টে পাঁচ মামলায় জামিন আবেদন করেন আপন জুয়েলার্সের মালিক তিন ভাই।

প্রাথমিক শুনানি নিয়ে ২২ নভেম্বর আপন জুয়েলার্সের মালিকদের কেন জামিন দেয়া হবে না- তা জানতে চেয়ে রুল দেয় হাইকোর্ট। তারপর গত ১৪ ডিসেম্বর হাইকোর্ট তিন ভাইকে তিন মামলায় জামিন দিলেও তা চেম্বার আদালতে গিয়ে তা স্থগিত হয়ে যায়।

উল্লেখ, গতবছর বনানীর একটি হোটেলে জন্মদিনের অনুষ্ঠানের নামে ডেকে নিয়ে দুই তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা হয় আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদারের ছেলে সাফাত আহমেদের বিরুদ্ধে। গত মে মাসে তাকে গ্রেপ্তার হয়।

ওই ঘটনার পর দেশজুড়ে তোলপাড় শুরু হলে আপন জুয়েলার্সের ‘অবৈধ লেনদেন’ এর খোঁজে তদন্তে নামে শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগ। আপন জুয়েলার্সের বিভিন্ন বিক্রয় কেন্দ্র থেকে ১৫ দশমিক ৩ মণ সোনা এবং ৭ হাজার ৩৬৯ টি হীরার অলঙ্কার জব্দ করে তা বাংলাদেশ ব্যাংকে পাঠানো হয়।

এ বিষয়ে অনুসন্ধান শেষে গত ১২ আগস্ট আপন জুয়েলার্সের মালিক তিন ভাই দিলদার আহমেদ, গুলজার আহমেদ ও আজাদ আহমেদের বিরুদ্ধে মুদ্রা পাচারসহ বিভিন্ন অভিযোগে গুলশান, ধানমন্ডি, রমনা ও উত্তরা থানায় পাঁচটি মামলা করা হয়।

 

ইউটিউবে দেশ টেলিভিশনের জনপ্রিয় সব নাটক ও অনুষ্ঠান দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Desh TV YouTube Channel

এছাড়াও রয়েছে

দুর্নীতির মামলায় খালেদার বিচারকাজ চালানোর আদেশ

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় ১০ অক্টোবর

ডাকসু নির্বাচন: হাইকোর্টের রায় স্থগিত চেয়ে ঢাবির আপিল

আলোকচিত্রী শহিদুল আলমের ডিভিশন বহাল

খালেদার অনুপস্থিতিতেই বিচার প্রশ্নে আদেশ ২০ সেপ্টেম্বর

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার পরবর্তী শুনানি দিন ১৭- ১৮ সেপ্টেম্বর

খালেদার অনুপস্থিতিতেই বিচার চলবে কি না জানতে চেয়েছে বিচারক

আইনমন্ত্রীর বক্তব্য অপমানজনক: বার সভাপতি

ইরানে সামরিক বাহিনীর কুচকাওয়াজ জঙ্গি হামলা, নিহত ২৪

দুই বছরের মধ্যে রাজধানীতে শৃঙ্খলা আসবে: সাঈদ খোকন

জাতীয় ঐক্য গড়ে তোলার আহ্বান ড. কামালের

চায়ের দোকানে বসে দলীয় বিবাদ করবেন না: কাদের